সেই ব্লগাররা প্রমাণ করুন দেশ-জাতির কল্যাণে বিদেশ পাড়ি!


সেই ব্লগাররা প্রমাণ করুন দেশ-জাতির কল্যাণে বিদেশ পাড়ি!


 

-আশিস বিশ্বাস, সংবাদকর্মী, Facebook: ashish.biswas.33, Twitter: Ashishkbiswas, Mail: ashishbiswas@rocketmail.com

পেন ইন্টারন্যাশনাল (pen-international.org) সংগঠনের নেতৃত্বে ৮টি মানবাধিকার সংগঠন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বাংলাদেশি ব্লগারদের জরুরি ভিত্তিতে সে দেশে আশ্রয় দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে। সোমবার এক চিঠিতে তারা এ আহ্বান জানায়। বিষয়টি প্রশংসার দাবিবার এবং আমি ব্যক্তিগতভাবে একে সমর্থনও করি।

Pen

কিন্তু একটি বিষয় নজরে এসেছে, যারা ইতোমধ্যে ব্লগার (!!) হয়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিয়েছেন, তাদের মধ্যে সত্যিকার অর্থে কতজন ব্লগার আছেন, সেটাও খতিয়ে দেখা দরকার। তারা মুক্তবুদ্ধি চর্চায় ব্লগে কী লিখেছেন, সেটাকেও গুরুত্ব দেওয়া দরকার। বিষয়টা এই জন্য দরকার যে, তারা আসলেই ব্লগার কিনা।

ব্লগার শুনলেই মনের মধ্যে অসীম জ্ঞানের অধিকারী একজন মানুষের ছবি ভেসে ওঠে; যারা যুক্তি দিয়ে, তথ্য দিয়ে, উদাহরণ দিয়ে নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ে ভূমিকা রাখেন। সেই সঙ্গে প্রশ্নহীন সাধারণ মানুষের মধ্যে প্রশ্নের (অন্তত Why) উদ্রেক করতে সক্ষম হন।

why (1)

মানুষের মূল্যবোধও পরিবর্তন হয়। হয়ত তা ধীরে ধীরে। কিন্তু এ জন্য তাকে তথ্য দিতে হবে (Cognitive domain) হবে। তথ্য দিতে হবে এ কারণে যে, মানুষ জন্মগতভাবেই যুক্তিবাদী। তার মূল্যবোধকে তার নিজের যুক্তি দিয়েই তিনি যে সঠিক তা বলতে চান। এই বোধকে পরিবর্তন করতে হলে ক্রমাগতভাবে যুক্তি, উদাহরণসহ বিজ্ঞানের অগ্রগতির অনেক বিষয়ই তুলে ধরতে হয়। আর এ কাজ করেন ব্লগাররা।

যেমন ধরুন- অভিজিৎ রায়। তিনি বিজ্ঞান বিষয়ে লেখার পাশাপাশি অনুসন্ধিৎসু মন নিয়ে জানার চেষ্টা করেছেন এবং তা ব্লগে বা বই আকারে প্রকাশ করেছেন। তিনি সার্ন-CERN (সার্ন বিগব্যাং থিওরি প্রতিষ্ঠা করতে গড’স পার্টিকেল বা হিগস বোসন-.কণা. অনুসন্ধান করে পাল্টা ইউনিভার্স প্রতিষ্ঠা করতে চায় ল্যাবে) সার্ন ল্যাব পরিদর্শন করে তা আমাদের জানিয়েছেন। আমরা তা জেনে কোয়ান্টাম পদার্থ বিজ্ঞানের সর্বশেষ অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে পেরেছি।11228128_370472566494886_7251847272352292137_n

তেমননি- রাজীব হায়দার শোভন, ওয়াশিকুর রহমান বাবু, অনন্ত দাশসহ অন্যান্য ব্লগাররা মানুষকে প্রশ্নমুখী করার, মানব ইতিহাসের এবং সভ্যতার শুরুর দর্শন কেন যে অলীক, কল্পিত তারও তথ্য তুলে ধরেছেন। তাদের তথ্য দিয়ে আমরা নিজেরা সমৃদ্ধ হয়েছি। সাধারণ মানুষের মূল্যবোধেও খোঁচা লেগেছে। এর সুফল হয়ত পাওয়া যাবে আরো পরে।

কিন্তু যারা ব্লগার (!!) হয়ে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন, তারা কী অবদান রেখেছেন, তারা আর তা তুলে ধরছেন না। তাদের কাছ থেকে তথ্যবহুল কোনো লেখা পাচ্ছি না। তারা বিদেশে গিয়ে কী করছেন, কেমন লাগছে, কী খাচ্ছেন সে সবের ছবি দিচ্ছেন ফেসবুকে। এ দিয়ে আমরা যারা ব্লগারদের কাছ থেকে আরো অনেক কিছু জানতে চাই, তাদের কোনোই উপকার হচ্ছে না। তাদের কোনো কর্মকাণ্ডে মনে হচ্ছে না যে, তারা অনেক জ্ঞানের অধিকারী। বরং তারা যে, অন্য কোনো উদ্দেশ্য বা ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধির জন্য পত্রপত্রিকায় দুই/একটা কথা বলেছেন, তা শুধুমাত্র ভিসা পাওয়ার জন্য; এর পেছনে ব্লগার হওয়ার কোনো হাত নেই। এখন কিন্তু তা পরিস্কার!

বিদেশে চাপাতির ভয় নেই। কিন্তু কেন এখন তাদের কাছ থেকে মুক্তমনা লেখা পাওয়া যাবে না! এমন একটা সময় আসবে, বিদেশিরা বুঝতে পারবে, তথাকথিত ব্লগাররা প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে সে দেশগুলোতে আশ্রয় নিয়েছে, শুধুমাত্র ব্যক্তি স্বার্থ উদ্ধারের জন্য। তখন সত্যিকারের ব্লগারও কোথাও আশ্রয় পাবেন না। সেটা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য আশঙ্কা হয়ে থাকবে।

ব্যতিক্রম

ব্যতিক্রম যে নেই, তা বলবো না। ব্যতিক্রম একজনের কথা বলি। তার সামাজিক সাইট নাম- ফড়িং ক্যামেলিয়া (Foring Camelia)। তিনি কিন্তু বিদেশে আশ্রয় নিয়েও তথ্য সমৃদ্ধ লেখা তৈরি করছেন এবং সামাজিক সাইটে শেয়ার করছেন। তার এ সব লেখা সাংবাদিক, গবেষক, উৎসাহী পাঠকদের জন্য যেমন রেফারেন্স হিসেবে কাজ করবে, তেমনি সাধারণ মানুষও অনেক কিছুই জানতে পারবেন। তার লেখার লিংক তুলে দিচ্ছি।

camelia-blog head

ব্লগ- Foring Camelia

নির্বাসিত ব্লগারের লেখা পড়তে শিরোনামে ক্লিক করুন

কে বলে নারী রাজাকার ছিল না ?
৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধে কোন নারীর সম্ভ্রম/সম্মান নষ্ট হয়নি ……।
নারী কেন শয়তানের স্বরূপ ?

আমরা কিন্তু এখন তুলনা করতে পারবো, সত্যিকার অর্থেই দেশের জন্য কোন কোন ব্লগার (!!) বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন! আমাদের কাছে সবার নামই আছে এবং কে কোথায় আছেন, তার তালিকাও সংবাদমাধ্যম কর্মীদের কাছে আছে।

তাহলে আমাদের দেশের মানুষ তুলনা করার সুযোগ পাবেন, সত্যিকার অর্থেই কারা দেশ ও মানব সভ্যতার জন্য অবদান রাখছেন, আর কারা ব্যক্তিস্বার্থে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন। বাংলাদেশে এখনো অনেকই আছেন, যারা চাপাতির ভয়ে দেশমাতৃকাকে ত্যাগ করেননি। দেশে বসেই তারা লিখছেন। সঙ্গতভাবেই নিরাপত্তার কারণে তাদের কারো নামই উল্লেখ করা যাবে না।

এখনো সময় আছে, যারা ব্লগার হয়ে বিদেশে পাড়ি জমিয়েছেন, তারা প্রমাণ করুন, সত্যিকার অর্থেই তারা দেশ ও জাতির জন্য কিছু করতে চেয়েছেন। তাদের পাণ্ডিত্য আমরা দেখতে চাই এবং বুক ফুলিয়ে বলতে চাই, তারা সত্যিকার অর্থেই একজন ব্লগার!

12141804_567189903433456_1796420225510965777_n

আমি দুখিত, এ সব কথা উচ্চারণের জন্য। কিন্তু বিবেকের তাড়নায় এবং একজন সংবাদকর্মী হিসেবে আমার কাছে মনে হয়েছে, এ বিষয়ে আলোকপাত করা উচিত। আমি হয়ত বিষয়টি উসকে দিলাম। অন্যরা বাকি কাজটা করবেন।

তবে চাপাতির কোপে জাতি যে সব প্রাগ্রসর মানুষ ও ব্লগার হারিয়েছে, তারা বেঁচে থাকলে তাদের কাছ থেকে আমরা আরো অনেক কিছুই জানতে পারতাম।

শ্রদ্ধা জানাই তাদের অবদানকে মনে রেখে…!! আমরা মনে না রাখলেও ইতিহাস ও সময় তাদের স্মরণ করবে; এখন যেমন গ্যালিলিও, কোপার্নিকাসসহ অনেককেই স্মরণ করে এবং করবে… (আমাদেরও সেই সময়কার অনেক দার্শনিক রয়েছেন, যাদের নাম আর উল্লেখ করা হলো না)।

কলমের জোর অটুট থাকুক-

pen-640x480

 

Malala Yousafzai: Pakistan bullet surgery ‘successful’


BBC Urdu Service

http://www.bbc.co.uk/news/world-asia-19893309

10 October 2012 Last updated at 15:53 GMT

Surgeons have removed a bullet from the head of a 14-year-old girl, a day after she was shot by Taliban gunmen in north-western Pakistan‘s Swat Valley.

The operation on Malala Yousafzai, a campaigner for girls’ rights, went well, her father told the BBC.

The attack sparked outrage among many Pakistanis, who gathered in several cities for anti-Taliban protests and held prayers for the girl’s recovery.

The militants said they targeted her because she “promoted secularism”.

A spokesman for the Islamist militant group, Ehsanullah Ehsan, told BBC Urdu on Tuesday she would not be spared if she survived.

The BBC’s Aleem Maqbool in Islamabad says the authorities will now have to consider how to protect the girl.

He says her family never thought about getting security because they just did not think that militants would stoop so low as to target her.

Two other girls were injured in Tuesday’s attack, one of whom remained in a critical condition on Wednesday.

‘Icon of courage’Malala Yousafzai came to public attention in 2009 by writing a diary for BBC Urdu about life under Taliban militants who had taken control of the valley.

The group captured the Swat Valley in late 2007 and remained in de facto control until they were driven out by Pakistani military forces during an offensive in 2009.

While in power they closed girls’ schools, promulgated Islamic law and introduced measures such as banning the playing of music in cars.

Malala Yousafzai’s brother, Mubashir Hussain, told the BBC that the militants were “cruel, brutal people” and urged all Pakistanis to condemn them.

Pakistani politicians led by the president and prime minister condemned the shooting, which the US state department has called barbaric and cowardly.

President Asif Ali Zardari said the attack would not shake Pakistan’s resolve to fight Islamist militants or the government’s determination to support women’s education.

Army chief Gen Ashfaq Parvez Kayani visited Malala in hospital on Wednesday and said the Taliban had “failed to grasp that she is not only an individual, but an icon of courage”.

Thousands of people around the world have sent the teenage campaigner messages of support via social media.

Schools in the Swat Valley closed on Wednesday in protest at the attack, and schoolchildren in other parts of the country prayed for the girl’s recovery.

Protests were held in Peshawar, Multan and in Malala’s hometown of Mingora, and another rally was expected in Lahore.

Late on Tuesday, she was flown from Mingora, where the attack happened, to the city of Peshawar, 150km (95 miles) away, for surgery.

Doctors in Peshawar operated on her for hours before managing to remove the bullet early on Wednesday.

“The operation went well, now she is ok and the swelling is down,” her father, Ziaudin Yousafzai, told BBC Pashto.

“Please pray for her, the next 24 to 48 hours are very important. Doctors are saying we don’t need to shift her. It’s good for her to be here now.”

A medically equipped plane had been placed on standby at Peshawar airport as medical experts tried to determine whether she would need further treatment overseas.

Police said they had arrested more than 40 people in the area, but all were later released on bail.

Correspondents say the arrests are part of a routine, and even the police do not believe they have found the attackers.

Malala Yousafzai earned the admiration of many across Pakistan for her courage in speaking out about life under the rule of Taliban militants, correspondents say.

She was just 11 when she started her diary, two years after the Taliban took over the Swat Valley and ordered girls’ schools to close.

Writing under the pen-name Gul Makai for BBC Urdu, she exposed the suffering caused by the militants.

Her identity emerged after the Taliban were driven out of Swat. She later won a national award for bravery and was nominated for an international children’s peace award.

Since the Taliban were ejected, there have been isolated militant attacks in Swat but the region has largely remained stable and many of the thousands of people who fled during the Taliban years have returned.

Delhi: Woman teacher killed over love affair


Press Trust of India

 New Delhi: In a case of honour killing, a 24-year-old teacher was killed allegedly by her mother and brother after she refused to stay with her husband and wanted to marry her lover, an engineer, who is from another caste. The incident was reported from Kanjhawla area of Delhi and the deceased has been identified as Deepti Chikara.

The teacher was pressured into a marriage in January but had returned to her house and was staying with her parents. Her family was putting pressure on her for marriage but she had rejected two men earlier and she told her mother about her relationship with an engineer who was from a different caste.

Her family rejected this and forcefully got her married in January but soon after her marriage, she returned to her house and started staying with her parents.

She was in touch with the engineer after her return from her husband’s house.

In April third week, she went missing but family did not file any complaint with police.

Her boyfriend later wrote an email to Delhi Police following which investigation was initiated.

During investigations, it came to light that she was strangled allegedly by her bother, mother and uncle, a senior police official said.

Her brother Mohit and mother Veermati were interrogated and they confessed to the crime, the official claimed. They allegedly dumped the body in Rourkee.

Source: http://www.politicoindia.com/newsreader.aspx?id=8490

Article: Analytic Thinking Can Promote Atheism


Stephanie Pappas, LiveScience Senior Writer

Date: 26 April 2012 Time: 02:00PM ET

Deliberate analytical thinking can cause people to believe less in God, according to a new study. The researchers, who found that religious belief arises from gut feelings, were quick to say their study was not a referendum on the value of religion. Both analytical thinking and the intuitive processing that seems to promote religious beliefs are important, said study researcher Will Gervais.

“Both are useful tools,” said Gervais, a doctoral candidate in psychology at the University of British Columbia. “Ultimately, these studies are looking at cognitive factors that might influence belief or disbelief, but they don’t have anything to say about the inherent rationality or worth of religion.”

Head versus heart

Psychologists have found that people process information through two distinct systems. One is the analytical system, marked by deliberate, logical processing. The intuitive system, on the other hand, uses mental shortcuts and gut feelings, Gervais said.

Earlier studies have shown that people who tend to go with their gut are more likely to believe in God than analytical types are. Gervais and his UBC colleague Ara Norenzayan reached the same finding by giving people a test to determine whether they were more analytical or more intuitive. For example, one question asked, “If it takes five machines five minutes to make five widgets, how long would it take 100 machines to make 100 widgets?”

The intuitive, go-with-your-gut answer would be “100.” But the analytical, do-the-math process gets you the correct answer of five minutes. People who came to the analytical answer also reported less religious belief than those who offered the intuitive response. [8 Ways Religion Impacts Your Life]

Thinking analytically But Gervais and Norenzayan also wanted to see if thinking style, in addition to being associated with religious belief, could actually cause changes in belief. In a series of four studies, the researchers subtly influenced participants to think more analytically. In one study, participants looked at a photo of either Rodin’s sculpture “The Thinker” or “Discobolus,” a Greek sculpture of a man throwing a discus. A pilot study had shown that viewing only “The Thinker” made people more likely to think analytically, while viewing the discus thrower did not sway anyone one way or another. Is belief in God good for people? Without question. For the most part. I have my doubts. No. View Results Share This

In two other studies, participants played word games with either neutral words such as “hammer” and “shoe” or analytical words such as “think” and “reason.” After these priming activities, participants answered questions about their religious beliefs.

In a final study, the participants simply answered the religion questions on a questionnaire printed in either a difficult-to-read font or an easy-to-read font. (Reading a hard-to-decipher style of lettering is known to boost analytical thinking.)

The surveys included statements that participants had to rate based on their level of agreement or disagreement, such as: “I believe in God”; “When I am in trouble, I find myself wanting to ask God for help“; and “I just don’t understand religion.”

The studies involved more than 650 participants in the United States and Canada. In every study, participants who were prompted to think analytically were less likely to report religious beliefs, such as believing in God, than participants who saw neutral stimuli.

“The overall take-home message is that religious beliefs are supported by a variety of intuition, but if you can get people to engage in analytic thinking, that promotes religious disbelief,” Gervais said.

Other factors, including culture and social norms, also influence religious belief and atheism, Gervais said. He and his colleagues aren’t sure how analytical thinking disrupts faith-promoting intuition. It’s possible that the analytic thinking might interfere directly with intuitive thoughts about life having a purpose or there being life after death, for example. Or these intuitive beliefs could still exist, but their cognitive link to religious belief could be broken by analytical thoughts, Gervais suggested. Or it might simply be that analytical thinking triggers a conscious “override” in which people talk themselves out of their beliefs.

“It’s important to emphasize that everybody has these two systems,” Gervais added. “Everybody can think intuitively and analytically, and it’s not the case that the intuitive system is always wrong and the analytical is always right.”

Source: http://www.livescience.com/19923-analytic-thinking-religious-disbelief.html